Inflammation মানেই অবধারিত ব্যাথা থাকবেই। মাথা ব্যাথা, কপাল ব্যাথা, নাকে ব্যাথা, চোয়ালে ব্যাথা, গলা ব্যাথা, বুকে ব্যাথা, পিঠে ব্যাথা,ঘাড়ে ব্যাথা, কোমর ব্যাথা, পাছায় ব্যাথা,জাঙে ব্যাথা, হাঁটু ব্যাথা,পায়ে ব্যাথা,গোড়ালি ব্যাথা, পায়ের পাতায় ব্যাথা, হাতে ব্যাথা, বিভিন্ন জয়েন্টে ব্যাথা, নার্ভ বা শিরার ব্যাথা ইত্যাদি।
এতগুলো ব্যাথায় ইনফ্লামেশন হচ্ছেই! এই ইনফ্লামেশন আপনা আপনি হচ্ছে না। নিশ্চয়ই কোন বস্তু, (যেটা আমার দেহের/ইমিউনিটির কাছে অপরিচিত,) আক্রমন করছে। সেটা ভাইরাস বা তার বাইপ্রোডাক্ট, কোন জীবাণু, কোন ক্ষতিকর বিষ বা কোন আঘাত হতে পারে।
ঐ ব্যাথা সৃষ্টিকারী এজেন্ট কে তাড়াতে যা দরকার হলিষ্টিক উপায়ে তা করতেই হবে। তাহলেই সম্পূর্ণ নিরাময় ও ব্যাথা থেকে মুক্তি মিলবে।
কিন্তু, সাময়িকভাবে ব্যাথা নিরসনে এমন কিছু করা দরকার যাতে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া মুক্ত ভাবে ব্যাথা থেকে নিস্কৃতি পাওয়া যায়।
এরজন্য, ইনফ্লামেশন প্রসেস এর বিভিন্ন বায়োকেমিক্যাল স্তরে এনজাইমকে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে এমন বহু সিন্থেটিক ড্রাগ আবিষ্কার হয়েছে।
যেমন – স্টেরয়েড জাতীয় সব রকম ওষুধ ( Prednisolone, deflazacort, Triamcinolone, kanacort, dexamethasone etc)
NSAIDs- Diclofenac, Aceclofenac, Nimesulide, paracetamol, Ketorolac, Etorocoxibe, etc)
কিন্তু, মহা সমস্যা হচ্ছে –
এই ব্যাথা নিরসনকারী ঔষধগুলো ব্যাথা কমালেও প্রচুর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে। কারণ, দেহের স্বাভাবিক ইমিউনিটি নষ্ট করে দেয়। পেটের নাড়িতে ঘা করে দেয়, কিডনি বা লিভারকে চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করে।
তাই, ব্যাথা নিরসনে দরকার এমন এক বিকল্প যার কোন সাইড-এফেক্ট নেই। উপরন্তু, ব্যাথা থেকে অনেক উপশম মিলবে। এবং শুধু টপিক্যাল এপ্লিকেশন করলেই আরাম পাওয়া যাবে।
এই সব দিক বিবেচনা করে, সবচেয়ে দরকারি উপকারী কার্যকরী হচ্ছে –
#কালোন্জী_তেল
কারণ, বিভিন্ন গবেষণায় প্রমাণিত সত্য যে, কালোন্জি তেল ব্যাথা নিরসনে খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। নিচের লিংকে গিয়ে 4 no point study করুন।
{বাত ব্যাথা :
যেখানেই মাংশপেশী,জয়েন্ট,নার্ভের প্রদাহ বা ব্যাথা সেখানেই লোকাল এপ্লিকেশন করলে ব্যাথা উল্লেখযোগ্যভাবে উপশম হয়৷ সঙ্গে ইন্টারনাল ইনজুরি রেপায়েরের জন্য দরকার অন্য সাপ্লেমেন্ট৷
https://www.ncbi.nlm.nih.gov/pmc/articles/PMC6535880/}
এই জন্যই হাদীস এ বর্ণিত হয়েছে –
” ইয়াহইয়া ইবনু বুকায়র (রহঃ) … আবূ হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কে বলতে শুনেছেনঃ #কালো_জিরা_সাম_ব্যতীত_সকল_রোগের_ঔষধ। ইবনু শিহাব বলেছেনঃ আর ‘সাম’ অর্থ হল মৃত্যু। আর কালো জিরা ‘শূনীয’ কে বলা হয়। সহীহ বুখারী,হাদিস নং -৫২৮৬)
এখন কথা হল-
১) বিশুদ্ধ কালোন্জি তেল কোথায় পাব?
২) ল্যাব রিপোর্ট করা ( COA) কালোন্জি কারা তৈরি করে বা সেল করে?
এই দুটো প্রশ্নেরই একমাত্র উত্তর হল- #AS_SHIFA
ব্যাবহার বিধি, অন্যান্য কোন রোগে উপকারী, উপাদান বিশ্লেষণ সহ নিজস্ব ম্যানুফাচারিং অত্যান্ত উচ্চ মানের বিশুদ্ধ কালোন্জি তেল পশ্চিমবঙ্গে একমাত্র #AS_SHIFA
তাই, যারা বিভিন্ন বাত ও ব্যাথায় জরাজীর্ণ ও ভারাক্রান্ত তারা অবশ্যই ( highly recommended) এই #AS_SHIFA কালোন্জি তেল পেতে এখনই কল করুন – ( also for bulk order / business purpose)
9749629462
9749902802
8016327980
For business enquiries
Whatsapp 8250852074

SHARE THIS POST

IMG-20240311-WA0107
IMG-20240224-WA0003
AS SHIFA TRUST
sds-min
ASHH